মি নোট ২ এর প্রথম ধাপের বিক্রি শেষ হয়েছে মাত্র ৫০ সেকেন্ডে!
মি নোট ২ এর প্রথম ধাপের বিক্রি শেষ হয়েছে মাত্র ৫০ সেকেন্ডে!
খুব অল্প সময়ের মধ্যে আমরা শীওমি’র কাছ থেকে তাদের ফ্ল্যাগশীপ ফোন মি নোট ২ এর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা পেয়েছি। সেই সাথে কাছাকাছি সময়ে মিলেছে মি মিক্স এর ঘোষণাও। মি মিক্স এর বিক্রি এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে। হয়তো আমরা ফোনটির দেখা পেতে যাচ্ছি খুব শিগগিরি, হতে পারে দিনটি ৪ নভেম্বর। অন্যদিকে মি নোট ২ এর প্রথম ধাপের বিক্রিও শেষ। অবিশ্বাস্য দ্রুততায় মি নোট ২ এর হ্যান্ডসেটগুলি বিক্রি হয়ে গেছে।

মি নোট ২ এর প্রথম ধাপের বিক্রি শেষ হয়েছে মাত্র ৫০ সেকেন্ডে!
মি নোট ২ এর প্রথম ধাপের বিক্রি শেষ হয়েছে মাত্র ৫০ সেকেন্ডে!


ঠিক করে বলতে গেলে বলতে হয় যে, মি নোট ২ এর বিক্রি পূর্বেকার মি ৫ এর বিক্রিকে হার মানিয়েছে। মি নোট ২ এর প্রথম ধাপের বিক্রি মাত্র ৫০ সেকেন্ডে শেষ হয়েছে। অবশ্য এই ৫০ সেকেন্ডে মোট কতোটি মি নোট ২ বিক্রি হয়েছে আমরা তার প্রকৃত সংখ্যা এখনো জানতে পারিনি। তবে নিঃসন্দেহে এটা বলা যায় যে, ফোনটির জনপ্রিয়তা আকাশ স্পর্শ করেছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ এর বিশাল ভরাডুবির পরে বাজারে এসে মি নোট ২ মূহুর্তেই বাজার মাত করে দিয়েছে। উচ্চ-প্রযুক্তির এই ফোনটি যে শুধু মাত্র এর ডিজাইন, ৫.৭ ইঞ্চি আকারের বাঁকানো অ্যামোলেড স্ক্রিন দিয়ে সবার মন জয় করেছে এমন নয়, কিন্তু তার অন্যান্য বৈশিষ্ট্যও মানুষ লুফে নিয়েছে। ফোনটিতে শক্তি দিচ্ছে কোয়ালকমের সর্বশেষ চিপসেট স্ন্যাপড্রাগন ৮২১। এতে আছে ৬জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি সংরক্ষণ ক্ষমতা। ক্রেতারা ইচ্ছে করলে তাদের প্রয়োজন মাফিক ৪জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি সংরক্ষণ ক্ষমতার ফোনও কিনতে পারবেন। ক্যামেরাতেও আছে বিশেষ কিছু। এতে দেয়া হয়েছে ২২.৫৬ মেগাপিক্সেলের সনি আইএমএক্স৩১৮ এক্সমর সেন্সর যাতে থাকছে এফ/২.০ লেন্স। প্রধান এই ক্যামেরাটিতে ৪ কে পর্যন্ত ভিডিও করার জন্যে আছে ইআইএস ডিজিটাল স্ট্যাবিলাইজেশন।

প্রথম দিনের বিক্রিতে দেখা গেছে ২ সংস্করণের ফোনই ক্রেতারা লুফে নিচ্ছেন। চীনে ৬৪ জিবি ফোনের জন্যে তারা পরিশোধ করেছেন ৪১৩ ডলার এবং ১২৮ জিবি জন্যে দিয়েছেন ৪৮৭ ডলার। অবশ্য বলা দরকার এই দুটি সংস্করণই চীনের জন্যে তৈরি যাতে গুগল প্লে সার্ভিস প্রি ইন্সটল্ড করা ছিল না। আশা করা হচ্ছে আন্তর্জাতিক বাজারে ফোনটির মূল্য ৫২০ ডলারের আশে পাশে হবে।